Gmail! | Yahoo! | Facbook

নাইট অব থাউজেন্ড বোম্বস

FacebookTwitterGoogle+Share

bombs at gaza১৪ মে ২০২১:  ‘নাইট অব ১০০০ বোম্বস’। আজ শুক্রবার বৃটেনের অনলাইন ডেইলি মেইলের প্রধান সংবাদ শিরোনাম এটি। এর অর্থ হাজার বোমার রাত। সহজেই অনুমেয়, এই শিরোনাম করা হয়েছে ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলের নৃশংস বোমা হামলাকে কেন্দ্র করে। বৃহস্পতিবার রাতভর গাজাজুড়ে উন্মত্তের মতো বোমা হামলা চালিয়েছে নেতানিয়াহুর বাহিনী। নির্মম সেই বোমা হামলায় গাজার রাত আলোকিত হয়ে উঠেছিল। অন্ধকার ভেদ করে বহুদূর থেকে দেখা যাচ্ছিল ইসরাইলের তাণ্ডবলীলা।

এখানেই থেমে থাকেনি তারা। গাজার উত্তর ও পূর্বাঞ্চলে ভয়াবহ এই হামলা, বোমাবৃষ্টির খবরে বহু ছবি ব্যবহার করেছে ডেইলি মেইল।

ওদিকে ইসরাইলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর সেনারা গাজায় স্থল হামলা শুরু করেছে বলে খবরে আতঙ্ক ও সংশয় তৈরি হয়। সীমান্তে হাজার হাজার সেনা মোতায়েন করেছে ইসরাইল। ৯ হাজার রিজার্ভ সেনাকে ডাকা হয়েছে।

দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে যা হয়, তাই হচ্ছে হামাসের। তারাও জীবনমরণ দিয়ে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। শত শত রকেট ছুড়েছে ইসরাইলের দিকে। এটাই তাদের বড় অস্ত্র। ক্ষোভ প্রকাশের জন্য এর চেয়ে বড় অস্ত্র দৃশ্যত তাদের হাতে নেই।

কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হলো, হিজবুল্লাহ নিয়ন্ত্রিত লেবানন থেকে তিনটি রকেট ছোড়া হয়েছে ইসরাইলের দিকে। তবে তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়েছে। যদি এই লড়াইয়ে আঞ্চলিক মিত্রগুলো জড়িয়ে পড়ে তাহলে ভয়াবহ এক পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে মধ্যপ্রাচ্যে।

লোড শহরে আরব ও ইসরাইলিদের মধ্যে আন্তঃসংঘর্ষ শুরু হয়েছে। রাজপথে উভয় পক্ষ এমন সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। জাফ্ফা এবং উম্ম আল ফাহমে নিজেদের মধ্যে এভাবে সংঘর্ষ করতে দেখা গেছে তাদেরকে। ডেইলি মেইল লিখেছে, গাজা উপত্যকায় সার্বিক আক্রমণের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরাইল।

তারা আকাশ, স্থল ও নৌপথে হামলা চালাতে চায় গাজায়। যদি তেমনটাই হয় তাহলে ভূখ- হিসেবে হয়তো গাজা থাকবে। কিন্তু সেখানে নিশ্চিহ্ন হয়ে যেতে পারে বসতি। তাতে সুবিধাই হবে ইসরাইলের ইহুদিদের। তারা দখল করে নিতে পারবে গাজা। এমনিতেই তারা মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়েছে অনেক স্থাপনা।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতভর হেলিকপ্টার, যুদ্ধবিমান, গান বোট এবং সাজোয়া যান থেকে বোমা ছোড়া হয় গাজায়। ইসরাইলের বক্তব্য, এর মধ্য দিয়ে তারা হামাসের টানেলগুলো ধ্বংস করে দিতে চায়। মানব জমিন

মন্তব্য