Gmail! | Yahoo! | Facbook

বিএনপিকে তারুণ্যের ইশতেহার দিল কোটা আন্দোলনকারীরা

FacebookTwitterGoogle+Share

tarunner istiharঢাকা, ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ঃ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে বিএনপির কাছে ‘তারুণ্যের ইশতেহার ভাবনা’ নামে একটি প্রস্তাবনা তুলে ধরেছে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা।

সোমবার বিকেল ৩টা ২০ মিনিটের দিকে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এসে তারা লিখিত ইশতেহার দেন।

এ সময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির তাদের ইশতেহারটি গ্রহণ করেন।

এর আগে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলোর উদ্দেশ্যে ৪৫টি দাবিসংবলিত একটি ইশতেহার তৈরি করেছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ভবনের মুজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনের সামনে ‘তারুণ্যের ইশতেহার ভাবনা-২০১৮’ অনুষ্ঠানে এ ইশতেহার ঘোষণা করা হয়।

ইশতেহারে থাকা উল্লেখযোগ্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-

তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির চাকরিতে কোটার যৌক্তিক সংস্কার আনতে হবে।

চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ করতে হবে। সবার জন্য অভিন্ন বয়সসীমা করতে হবে।

চাকরির আবেদনের ফি সম্পূর্ণ ফ্রি করতে হবে।

শিক্ষায় জিডিপির ৫ শতাংশ বা জাতীয় বার্ষিক বাজেটের ২০ শতাংশ বরাদ্দ দিতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিতে হবে। এ ছাড়া প্রশ্নফাঁসবিরোধী সেল গঠন করতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেটের ১০ শতাংশ গবেষণায় দিতে হবে, যার ৬ শতাংশ শিক্ষকদের জন্য এবং ৪ শতাংশ হবে ছাত্রদের জন্য।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ তরুণদের পক্ষ থেকে রাজনৈতিক দলগুলোর উদ্দেশ্যে পেশ করবে ‘তারুণ্যের ইশতেহার ভাবনা’।

ইশতেহারটি ইতিমধ্যেই আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য