Gmail! | Yahoo! | Facbook

নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠনে অবিলম্বে সংলাপ চায় খেলাফত মজলিস

FacebookTwitterGoogle+Share

১ সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশে খেলাফত মজলিসের পক্ষকালব্যাপী দাওয়াত ও গণসংযোগ
km logoঢাকা, ১৫ আগস্ট ২০১৮: খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেছেন, একটি অবাধ ও সুষ্ঠ ু জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠান ছাড়া দেশের চলমান সংকট উত্তরণ সম্ভব নয়। কিন্তু বর্তমান সরকারের অধিনে কোন সুষ্ঠু ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের জেলে পুরে, মামলা হামলা হত্যা নির্যাতনের মাধ্যমে কোন ঠাসা করে রাখা হয়েছে। বিরোধী দলসমূহকে ময়দানে রাজনৈতিক কর্মসূচী পালনের সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। দেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি’র চেয়ারপারসন ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজানো মামলায় করাবন্দী করে রাখা হয়েছে। বিরোধী দলসমূহের লাখ লাখ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে। দলীয় ক্যাডার আর প্রশাসনের সহযোগিতায় বিগত সিটি নির্বাচনসহ এ সরকারের আমলে অনুষ্ঠিত সকল নির্বাচনে ভোটে নামে প্রহসন হয়েছে। তাই বর্তমান সরকারের অধিনে সুষ্ঠু ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়। এ জন্যে নির্বাচনের পূর্বে জাতীয় সংসদ ভেঙ্গে দিতে হবে। নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। সংঘাতময় পরিস্থিতি এড়াতে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠনে বর্তমান সরকারকে অবিলম্বে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সংলাপের ব্যবস্থা করতে হবে। তা না হলে উদ্ভূত পরিস্থিতির সকল দায় বর্তমান সরকারকেই বহন করতে হবে। খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

গতকাল সন্ধ্যা ৭টায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আমীরে মজলিস মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাকের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদেরের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের নায়েবে আমীর- মাওলানা সৈয়দ মজিবর রহমান, যুগ্মমহাসচিব এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন, শেখ গোলাম আসগর, সাংগঠনিক সম্পাদক- মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুল হালিম, মাওলানা নোমান মাজহারী, অধ্যাপক মো: আবদুল জলিল, অধ্যাপক কে এম আলম, মাওলানা মাওলানা আজিজুল হক প্রমুখ।
বৈঠকে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশে খেলাফত মজলিসের পক্ষকালব্যাপী দাওয়াত ও গণসংযোগ কর্মসূচী সফলের লক্ষে বিস্তারিত পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়।

মন্তব্য