Gmail! | Yahoo! | Facbook

ইসলাম সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দেয় নাঃ বেফাক’র মৌলভীবাজার জেলার মানববন্ধন

FacebookTwitterGoogle+Share

Wafaq-MB মৌলভীবাজার, ২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ঃ ইসলাম সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দেয়না, আর কওমি মাদরাসায় ইসলাম শিক্ষা দেয়া হয়; সন্ত্রাস নয়। তাই কওমি মাদারিস থেকে সন্ত্রাসী-জঙ্গি বের হয়না। খাটি দ্বীনদার দেশ প্রেমিক আলেম তৈরী হয়। গতকাল সকালে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড (বেফাক) মৌলভীবাজার জেলা শাখার উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব কথা বলেন।

মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব চত্বরে বেফাকের জেলা সভাপতি শায়খুল হাদীস আল্লামা আব্দুল বারী ধর্মপুরীর সভাপতিত্বে ও মাসিক হেফাজতে ইসলামের নির্বাহী সম্পাদক হাফিজ মাও. নাজমুল হকের পরিচালনায় আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা আরো বলেন, আল্লাহ তাআলা কোরআনে বলেছেন ‘অন্যায় ভাবে কোন মানুষ হত্যা করো না। যে একজন মানুষকে হত্যা করলো সে যেন গোটা মারবজাতিকে হত্যা করলো’। কওমি মারাসায় পড়ুয়া দেশ প্রেমিক আলেমরা আল্লাহ তাআলার মহান এ বাণী মনে প্রানে বিশ্বাস করে, তাই কখনো তারা জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদের সাথে জড়িত হতে পারে না। ধর্মহীন শিক্ষাই জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করেছে। শিক্ষার সর্বস্তরে ইসলামী শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করা হলে জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না।
মানববন্ধনে মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের প্রশাসক ও সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব আজিজুর রহমান একাত্বতা ঘোষণা করে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন বেফাকের মৌলভীবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক, রায়পুর মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাও. গিয়াস উদ্দীন, জামেয়া আরাবিয়ার প্রিন্সিপাল ও বেফাকের জেলা সহ-সম্পাদক মাও. মুফতি হাবিবুর রহমান কাসেমী, জেলা বেফাকের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাধানগর মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল মুগনী, জামেয়া লুৎফিয়া বরুনার পক্ষে মাও. শেখ হাদী আলম হামিদী, জামেয়া শেখবাড়ি মাদরাসার পক্ষে ভাইস প্রিন্সিপাল মাও. শেখ আহমদ আফজাল বর্ণভী, কালিয়ারগাঁও মাদরাসার পক্ষে হাফিজ মাও. আবিদুর রহমান, দারুল উলুম মাদরাসার পক্ষে হাফিজ আজমান আলী, ভাদগাঁও মাদরাসার মুহতামিম মাও. এমদাদুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাও. শফিউল আলম, মাও. আব্দুল আলী, মাও. আব্দুল হাই, মাও. এমদাদুর রহমান শায়খে কাটারাই, জামেয়া দারুল কোরআনের মাও. শরীফ খালেদ সাইফুল্লাহ প্রমুখ।

মানববন্ধন কোর্ট পয়েন্ট থেকে চৌমুহনা, প্রেস ক্লাবের সামন থেকে জেলা কোর্ট এবং শাহ মোস্তফা রোডে সুলতানপুর পয়েন্ট পর্যন্ত দীর্ঘ হয়।

সভাপতির দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে কর্মসূচী সমাপ্ত হয়।

 

মন্তব্য