Gmail! | Yahoo! | Facbook

বাংলাদেশ জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক জুম্মন লুসাই আর নেই

FacebookTwitterGoogle+Share
jummon_lusaiঢাকা, ১৮ জানুয়ারীঃ বাংলাদেশ জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক জুম্মন লুসাই আর নেই। রোববার বিকেল সাড়ে তিনটায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে আক্রান্ত তিনি লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

জাতীয় হকি দলকে একাধিকবার নেতৃত্ব দেয়া জুম্মন লুসাই খেলোয়াড়ি জীবনের প্রায় পুরোটা সময়ই কাটিয়েছেন দেশের শীর্ষ ক্লাব আবাহনীতে। শুক্রবার বিকেলে আবাহনী ক্লাব প্রাঙ্গণেই মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে আক্রান্ত হন তিনি। প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় বাংলাদেশ মেডিকেল হাসপাতালে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে স্থানান্তর করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ)। কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছিল তাকে।

হকি ফেডারেশনের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক আসরে বাংলাদেশের একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে হ্যাটট্রিক করার কীর্তিও জুম্মনের গড়া। ১৯৮৫ সালে এশিয়া কাপে ইরানের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করেন সিলেটের এই ডিভেন্ডার। তিনি বাংলাদেশের একমাত্র হকি খেলোয়াড়, যিনি বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলার গৌরব অর্জন করেন।

১৯৫৫ সালের ১২ অগাস্ট জন্মগ্রহণ করেন জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত হকি খেলোয়াড় জুম্মন। জুম্মন ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের রক্ষণভাগের হয়ে মাঠে আলো ছড়ান। ১৯৮২ সালে দিল্লিতে অনুষ্ঠিত ৯ম এশিয়ান গেমসে অংশ নেন জুম্মন। ১৮৮৫ সালে ঢাকায় দ্বিতীয় এশিয়া কাপ, ১৯৮৬ সালে সিউলের ১০ম এশিয়ান গেমস ও ১৯৮৯ সালে দিল্লিতে তৃতীয় এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দলের পক্ষে হয়ে খেলেন তিনি। এর পরই আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টানেন তিনি। সিউলের আসরে বাংলাদেশ দলের সহ-অধিনায়ক ছিলেন ‘পেনাল্টি কর্নার স্পেশালিস্ট’ বলে পরিচিত জুম্মন।

জাতীয় পুরস্কারপ্রান্ত হকি তারকা জুম্মন লুসাই এসেছিলেন একটি ক্রীড়া পরিবার থেকে। তার বড় ভাই রামা লুসাই সত্তর ও আশির দশকে ঢাকার ফুটবলের জনপ্রিয় তারকা ছিলেন। খেলেছেন মোহামেডান ও জাতীয় ফুটবল দলে। বাবা হারেঙ্গা লুসাইও হকি খেলতেন। ছোট ভাই জুবেল লুসাইও আবাহনী, অ্যাজাক্স, মোহামেডান ও সাধারণ বীমার হয়ে হকি খেলেছেন সর্বোচ্চ পর্যায়েই।

মন্তব্য