Gmail! | Yahoo! | Facbook

বাহুবলে দিনে-দুপুরে বাসায় দুঃসাহসিক চুরিঃ স্বর্ণালংকারসহ ৫ লাখ টাকার মালামাল লুট

FacebookTwitterGoogle+Share

Churi Pci (1)স্টাফ রিপোর্টার, ১৮ ডিসেম্বরঃ বাহুবল বাজারের পশ্চিম পাশে ইসলামাবাদ আবাসিক এলাকার এক বাসায় দিনে দুপুরে দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়েছে। বাসার তালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে চোরেরা সুকেশ ও ড্রয়ারের তালা ভেঙ্গে প্রায় ৬ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৩৩ হাজার টাকা, দেশী বিদেশী সংরক্ষিত কাপড় চোপড় সহ প্রায় ৫ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২ টারদিকে মদরিছ মিয়ার বাসায়।

স্থানীয় ও পরিবারের লোকজন সূত্রে জানা যায়, দুপুর ১২টারদিকে মদরছি মিয়ার লোকজন স্বপরিবারে বাসা তালাবদ্ধ করে গ্রামের বাড়ি আকিলপুর গ্রামে একটি বিয়ে অনুষ্ঠানে চলে যান। তার বাসার একাংশে ভাড়ায় বসবাস করে আসছেন দুবাই প্রবাসী রহমত আলীর পরিবার। গত কয়েকদিন পূর্বে রহমত আলীর পরিবারের লোকজন বাসা তালাবদ্ধ করে গ্রামের বাড়িতে চলে যান।

গতকাল বুধবার দুপুর দেড় টারদিকে রহমত আলীর স্ত্রী সেলিনা বেগম, মেয়ে খাদিজা সহ সদস্য বাসায় এসে দেখতে পান বাসার তালাভাঙ্গা ও ভেতরের মালামাল তছনছ। তাদের সন্দেহ হলে বাসার মালিক মদরিছ মিয়াকে খোজ করলে মদরিছ মিয়ার পরিবারের লোকজন খবর পেয়ে গ্রামের বাড়ি থেকে দৌড়িয়ে এসে দুঃসাহসিক চুরির আলামত প্রত্যক্ষ করেন। উভয় পরিবারের লোকজন ভেতরে ঢুকে দেখেন সুকেশ ও ড্রয়ারের তালা ভাঙ্গা ও কাপড়-চোপড় ও স্বর্ণালংকার নেই। বিষয়টি এতক্ষণে এলাকায় সাড়া পড়ে যায়। শুরু হয় পরিবারে চরম হতাশা।

সরেজমিনে গিয়ে পরিবারের ভাষ্য ও আলামত দেখে স্থানীয় বাসিন্দাদের ধারণা- হয়ত স্থানীয় পর্যায়ের পরিচিত চোর প্রকৃতির একদল দুর্বৃত্ত বাসার লোকজন বাসা থেকে বের হওয়ার সাথে সাথেই বাসায় প্রবেশ করে ওই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনাটি ঘটায়। উল্লেখ্য, বাহুবল সদরের হামিদনগর, ইসলামাবাদ ও উপজেলা পরিষদ এলাকায় প্রায়ই চুরির ঘটনা ঘটে আসছে। এর মাঝে পুলিশ কয়েক চোরকে ইতিমধ্যে গ্রেফতারও করে। এদিকে দিন দুপুরে ওই চুরির ঘটনায় এলাকাবাসীর মাঝে নিরাপত্তাহীনতার আশংকা দেখা দিয়েছে। এমন মন্তব্য অনেকেই করছেন। এ ঘটনায় রাতে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং চোরদের পাকড়াও করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

মন্তব্য