Gmail! | Yahoo! | Facbook

ধারা ৩৭০ ও ৩৫এ বাতিল, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেঁড়ে নিলো ভারত

FacebookTwitterGoogle+Share

jk৫ আগস্ট ২০১৯ঃ কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা সম্পন্ন ধারা ৩৭০ ও ৩৫ এ বাতিল করে দু’টি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ করা হয়েছে। দীর্ঘ ৭০ বছর যাবত জম্মু-কাশ্মীর যে মর্যাদা ভোগ করে আসছিলো তা আজ কেঁড়ে নিলো ভারত।

ভারতীয় সংবিধানে ধারা ৩৭০ অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল ১৯৪৯ সালের ১৭ অক্টোবর।

সোমবার, সংসদ শুরু হতেই রাজ্যসভায় সংবিধানের ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন অমিত। সঙ্গে সঙ্গেই বিরোধীরা তুমুল হই হট্টগোল জুড়ে দেন। কয়েক মিনিটের জন্য মুলতুবি হয়ে যায় অধিবেশন। পরে ফের অধিবেশন শুরু হলে, বিরোধীদের হই হট্টগোলের মধ্যেই রাষ্ট্রপতির নির্দেশনামা পড়ে শোনান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী-সহ রাজ্যের একাধিক শীর্ষনেতা গৃহবন্দি। গ্রেফতারও হয়েছেন কেউ কেউ। উপত্যকার বেশ কিছু এলাকায় ইতিমধ্যেই জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা। এর জেরে, উপত্যকায় কী হতে চলেছে তা নিয়ে কয়েকদিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল।

ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা অনুযায়ী জম্মু ও কাশ্মীর একটি ব্যতিক্রমী রাজ্য – কারণ প্রতিরক্ষা-পররাষ্ট্র বা যোগাযোগের মতো কয়েকটি বিষয় ছাড়া বাকি সব ক্ষেত্রে সেখানে ভারতের কোনও আইন প্রয়োগ করতে গেলে রাজ্য সরকারের সম্মতিও জরুরি।
নাগরিকত্ব, সম্পত্তির মালিকানা বা মৌলিক অধিকারের প্রশ্নেও এই রাজ্যের বাসিন্দারা বাকি দেশের তুলনায় বাড়তি কিছু সুবিধা ভোগ করেন, আর ৩৭০ ধারাই তাদের সে অধিকার দিয়েছে।
৩৭০ ধারার ভিত্তি নিহিত ছিল ভারতের সঙ্গে কাশ্মীরের সংযুক্তিকরণের ইতিহাস।

মন্তব্য