Gmail! | Yahoo! | Facbook

বন্যাদুর্গতদের মাঝে খেলাফত মজলিসের ত্রাণ বিতরণ

FacebookTwitterGoogle+Share

বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষ চরম দুর্ভোগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে: শেখ গোলাম আসগর 
km-relief workঢাকা, ৩১ জুলাই ২০১৯: খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব শেখ গোলাম আসগর বলেছেন, দেশের উত্তরাঞ্চলের বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষ চরম দুর্ভোগের মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছে। বিশেষ করে দূরবর্তী চরাঞ্চলের দুর্গত মানুষের কেউ খোঁজ নিচ্ছে না। আর সরকার বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়াতে ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে অসহায় বন্যাদুর্তদের মাঝে তেমন কোন ত্রাণ তৎপরতা নেই। এ অবস্থায় সমাজের সামর্থবান সকলকে দুর্গত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে যেতে হবে। আজ কুড়িগ্রামের বন্যাদুর্গত মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।
আজ ৩১ জুলাই বুধবার সকাল থেকে কুড়িগ্রামের চিলমারীর থানাহাটি ইউনিয়র ও সদরের পাঁচগাছী-যাত্রাপুর ইউনিয়নে খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, কুড়িগ্রাম জেলা সভাপতি মাওলানা আবু সাইয়্যেদ, সহসভাপতি শবেবর রহমান, সেক্রেটারী মাওলানা কাজী নূরুজ্জান, হাজী আবদুল করিম মিন্টু, ছাত্র মজলিস নেতা আজীজ উল্লাহ আহমদী, মাওলানা শহিদুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, মাওলানা আলাউদ্দিন প্রমুখ। খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে বিতরণকৃত ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, আলু, সয়াবিন তেল, নগদ অর্থ ইত্যাদি।
মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী বলেন, বন্যার প্রকোপ, ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভবসহ নানা দুর্যোগে আক্রান্ত বাংলাদেশের মানুষ। এসব দুর্যোগ দুর্বিপাক থেকে মুক্তি পেতে জাতীয়ভাবে আল্লাহর কাছে পানাহ চাইতে হবে। সবাইকে বেশী বেশী তাওবাহ, ইসতিগফার করতে হবে। জুলুম, নির্যাতন, অনাচার বন্ধ করতে হবে।
আগামীকাল ১ আগস্ট সকাল থেকে গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন স্পটে খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে।

এ অবস্থায় সমাজের সামর্থবান সকলকে দুর্গত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে যেতে হবে। আজ কুড়িগ্রামের বন্যাদুর্গত মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।
আজ ৩১ জুলাই বুধবার সকাল থেকে কুড়িগ্রামের চিলমারীর থানাহাটি ইউনিয়র ও সদরের পাঁচগাছী-যাত্রাপুর ইউনিয়নে খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, কুড়িগ্রাম জেলা সভাপতি মাওলানা আবু সাইয়্যেদ, সহসভাপতি শবেবর রহমান, সেক্রেটারী মাওলানা কাজী নূরুজ্জান, হাজী আবদুল করিম মিন্টু, ছাত্র মজলিস নেতা আজীজ উল্লাহ আহমদী, মাওলানা শহিদুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, মাওলানা আলাউদ্দিন প্রমুখ। খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে বিতরণকৃত ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, আলু, সয়াবিন তেল, নগদ অর্থ ইত্যাদি।
মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী বলেন, বন্যার প্রকোপ, ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভবসহ নানা দুর্যোগে আক্রান্ত বাংলাদেশের মানুষ। এসব দুর্যোগ দুর্বিপাক থেকে মুক্তি পেতে জাতীয়ভাবে আল্লাহর কাছে পানাহ চাইতে হবে। সবাইকে বেশী বেশী তাওবাহ, ইসতিগফার করতে হবে। জুলুম, নির্যাতন, অনাচার বন্ধ করতে হবে।
আগামীকাল ১ আগস্ট সকাল থেকে গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন স্পটে খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে।

মন্তব্য