Gmail! | Yahoo! | Facbook

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ

FacebookTwitterGoogle+Share

bnpঢাকা, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ঃ দলের চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১টায় নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এই বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। এতে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিক্ষোভ মিছিলটি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ফকিরাপুল হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

মিছিলে ঢাকা মহানগর যুবদল ও ছাত্রদলের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন। নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে সোচ্চার কন্ঠে শ্লোগান শ্লোগান দিতে থাকেন।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘২৯ ডিসেম্বর পুলিশকে দিয়ে জনগণের ভোট লুট করিয়ে এখন প্রধানমন্ত্রী তাদের পদক দিচ্ছেন। জাতি, জনগণ, গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকারের সাথে প্রধানমন্ত্রীর এটা শ্রেষ্ঠ তামাশা। দেশ এখন আদিম অন্ধকারে নিমজ্জিত। চারিদিকে ভীতি ও শঙ্কা আসন গেড়ে বসেছে। দেশকে নিরঙ্কুশভাবে হাতের কব্জায় নিতেই মহাভোট ডাকাতির নির্বাচন করা হয়েছে, আর সেজন্যই দেশের বিপুল জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে পরিকল্পিতভাবে কয়েক মাস আগে মিথ্যা মামলায় আটক করে কারাগারে রাখা হয়েছে। বেগম জিয়া চরম অবিচার ও প্রতিহিংসার শিকার। অবিলম্বে বেগম জিয়াসহ সকল রাজবন্দীর নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।’

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি এক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে প্রায় একবছর ধরে কারাবন্দী খালেদা জিয়া। পুরনো ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে নির্জন বন্দি তিনি। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি তার কারাবরণের এক বছর পূর্ণ হবে। ইতিমধ্যে তার মুক্তির দাবিতে ৮ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করার ঘোষণা দিয়েছিল বিএনপি। কিন্তু একুশের বইমেলা থাকায় জনসভা স্থগিত করে ওইদিনই ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে প্রতিবাদ সমাবেশ করবে দলটি। এছাড়াও বছরজুড়েই খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন ধরনের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। নয়া দিগন্ত

মন্তব্য