Gmail! | Yahoo! | Facbook

সৈয়দ রেজাউল করীম ইসলামী আন্দোলনের আমির পুনঃনির্বাচিত

FacebookTwitterGoogle+Share

iabঢাকা,  ১৭ জানুয়ারী ২০১৯ঃ চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। দলটির মহাসচিব পদে মাওলানা ইউনুছ আহমাদও পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দলটির দ্বিবার্ষিক শুরা অধিবেশনে এ নির্বাচন সম্পন্ন হয়। একইসঙ্গে দলের শুরা অধিবেশনে কেন্দ্রীয় মজলিশে আমেলার (কার্যনির্বাহী পরিষদ) ৪১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।
ইসলামী আন্দোলনের শুরার অধিবেশন শুরু হয় আজ সকাল ৯টায়। শুরার অধিবেশনে সারাদেশ থেকে প্রায় আড়াইশ সদস্য অংশ নেন। অধিবেশনে বিভিন্ন জেলা কমিটি ও জেলার কার্যক্রম নির্ধারণ করা হয়। দ্বিতীয় অধিবেশনে কেন্দ্রীয় কমিটির দ্বিবার্ষিক কর্ম পরিকল্পনা ও মজলিশে আমেলার আমির ও মহাসচিব নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।
আমির ও মহাসচিব নির্বাচিত হয়ে শুরার সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে মজলিশে আমেলার (কার্যনির্বাহী পরিষদ) ৪১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির পদ বণ্টন করেন।
দলটির নির্বাচিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির অন্যরা হচ্ছেন  নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম, মাওলানা আব্দুল আউয়াল, মাওলানা আব্দুল হক আজাদ, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা এটিএম হেমায়েতউদ্দীন, নেয়ামতুল্লাহ্ আল-ফরিদী, মাহবুবুর রহমান।  সহকারী মহাসচিবের দায়িত্ব পেয়েছেন মাওলানা মুহাম্মদ আবদুল কাদের ও মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম আতিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, সহ-প্রচার সম্পাদক মুফতি দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, দফতর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, অর্থ সম্পাদক মো. হারুন অর রশীদ, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি  মো. হেমায়েতুল্লাহ, সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক মুফতি সৈয়দ এসহাক মুহাম্মদ আবুল খায়ের, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা নেছার উদ্দিন, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. লুৎফর রহমান শেখ, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শওকত আলী হওলাদার, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক জান্নাতুল ইসলাম, কৃষি ও শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান, সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শরিফুল ইসলাম, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক জি এম রুহুল আমীন, মহিলা ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মো. মকবুল হোসাইন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ নুরুল করীম, সংখ্যালঘু বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ বরকতুল্লাহ লতিফ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম।  এছাড়াও নির্বাচিত কার্যনির্বাহী সদস্যরা হচ্ছেন  মাওলানা সৈয়দ মমতাজুল করীম, মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মুহাম্মদ মনির হোসেন, মাওলানা কেফায়েতুল্লাহ কাশফী এ্যাডভোকেট একে এম এরফান খান, ডা. মোয়াজ্জেম হোসাইন, মুহাম্মদ সেলিম মাহমুদ, সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, মাওলানা খলিলুর রহমান।
শুরা অধিবেশনে বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, জনমত উপেক্ষা করে প্রশাসনকে দলীয়করণের মাধ্যমে ভোট ডাকাতি করে কোনও সরকার কখনও স্থায়ী হয়নি। তাই এই সরকারও স্থায়ী হতে পারবে না। আজ মানুষের নিরাপত্তা নেই, বাক-স্বাধীনতা নেই। দেশের চিত্র প্রকাশিত হয় সংবাদপত্র ও সকল প্রচার মাধ্যমে। আজ গণমাধ্যমেরও স্বাধীনতা নেই। এমতাবস্থায় কোনও বিবেকবান মানুষ বসে থাকতে পারে না।

মন্তব্য